জলরাশির ছন্দে মুখর খাগড়াছড়ির ‘রিছাং ঝর্ণা’

নিউজ ডেস্কঃ-

রিছাং শব্দটি মারমা সম্প্রদায়ের ভাষা থেকে এসেছে। খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলার অন্যতম পর্যটন স্পট ‘রিছাং ঝর্ণা’। এর অন্য নাম ‘তেরাং তৈকালাই’। মারমা ভাষায় ‘রিই’ শব্দের অর্থ পানি এবং ‘ছাং’ এর অর্থ কোনো কিছু থেকে লাফিয়ে পড়া। অর্থাৎ রিছাং এর বাংলা অর্থ হলো, উঁচু স্থান থেকে জলরাশির পড়া।

২০০৩ সালের দিকে রিছাং ঝর্ণা সবার নজরে আসে। আস্তে আস্তে পরিচিতি লাভ করে দর্শনীয় স্থান হিসেবে। প্রকৃতি এই রিছাং ঝর্ণার চারপাশের পরিবেশ এমন সব সৌন্দর্যে পরিপূর্ণ করে রেখেছে যা দেখে আপনি মুগ্ধ না হয়ে পারবেন না।

রিছাং ঝর্ণা থেকে যে দিকে চোখ যায় শুধু সবুজ আর নীলচে পাহাড় দেখা যায়। পাহাড়ের গায়ে পাখির কলকাকলি প্রতিফলিত হয়ে দারুণ এক আমেজের সৃষ্টি করে। সেই সঙ্গে একরাশ বাতাস এসে আপনার মনকে মাতোয়ারা করে দিয়ে যাবে। বর্তমানে রিছাং ঝর্ণা খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদের তত্ত¡াবধানে রয়েছে।

কিভাবে যাবেন:
খাগড়াছড়ি শহর থেকে চাঁদেরগাড়ি (লোকাল নাম চান্দেরগাড়ি) বা পাবলিক বাসে করে যেতে হবে আলুটিলা পর্যটন কেন্দ্রে। সেখান থেকে হেঁটে কিংবা মোটরবাইকে করে যেতে হবে সরাসরি রিছাং ঝর্ণায়। হেঁটে ঝর্ণাতে পৌঁছাতে সময় লাগবে ৪৫/৫০ মিনিটের মতো। আর যদি চাঁদেরগাড়ি রিজার্ভ করে নিতে পারেন তাহলে সবচেয়ে ভালো হয়।

Please follow and like us:
error0