রুহিঙ্গা ইস্যুতে চরম উস্কানির পরেও অস্তিতিশীলতা বাড়াতে দেইনি!প্রধানমন্ত্রী

আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্কঃ ডেইলি টেকনাফ ডটকমঃরোহিঙ্গা ইস্যুতে মিয়ানমারের চরম উসকানি ও সংকটের মধ্যেও বাংলাদেশ এই পরিস্থিতিতে নৈরাজ্য ও আঞ্চলিক অস্থিতিশীলতা বাড়তে দেয়নি বলে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে জানিয়েছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।বৃহস্পতিবার (৩০ মে) স্থানীয় সময় সকালে জাপান সফররত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা টোকিও’র হোটেল ইমপেরিয়ালে আয়োজিত ২৫তম আন্তর্জাতিক নিকেই সম্মেলনে প্রধান বক্তার বক্তব্যে এ কথা বলেন।এশিয়ার ভবিষ্যৎ লক্ষ্য: একটি নতুন বৈশ্বিক শৃঙ্খলায় সচেষ্ট হওয়া, চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করা’ এমনই একটি প্রতিপাদ্য বিষয় নিয়ে এবারের সম্মেলনটি অনুষ্ঠিত হচ্ছে।সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, চরম সীমাবদ্ধতা থাকা সত্ত্বেও দায়িত্বশীল জাতি হিসেবে আমরা জোর করে বিতাড়িত মিয়ানমারের রোহিঙ্গা নাগরিকদের আশ্রয় দিয়েছি। আমরাই শুধু মানবতার ডাকে সাড়াই দিইনি, আমরা এই সচেতনতার সঙ্গে সংকটটিকে নৈরাজ্য ও আঞ্চলিক অস্থিতিশীলতায় বাড়তে দিইনি।

রোহিঙ্গা সংকটে বাংলাদেশের অবস্থান ও পদক্ষেপের কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, চরম উসকানি ও সংকেটের মধ্যেও আমরা সংলাপ এবং ঐকমত্য চেয়েছি। আমাদের অঞ্চলসহ বিশ্বের অন্যান্য সংকটময় পরিস্থতিতে বিশ্ব শান্তি, মানবতা ও উন্নয়নের জন্য সংঘাত এড়ানো এবং ঐকমত্যে পৌঁছানোর ক্ষেত্রে এটি শিক্ষণীয়।বঙ্গবন্ধুকন্যা বলেন, নতুন প্রজন্মের জন্য স্থিতিশীল ও টেকসই বিশ্ব নিশ্চিতে বাংলাদেশ বিশ্ব সম্প্রদায়ের সদস্য হিসেবে তার সব বন্ধু ও অংশীদারদের সঙ্গে কাজ করে যাবে।বিশ্ব শান্তি ও সমৃদ্ধির অগ্রযাত্রা নিয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, মানব সভ্যতা যুদ্ধের ভয়াবহতা এবং প্রাকৃতিক দুর্যোগের থাবায় জর্জরিত হয়েছে। তারপরও পৃথিবী সমৃদ্ধির দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। কেননা, মানবতা ও ইতিবাচক শক্তি সফল হতে বাধ্য।উদীয়মান এশিয়ার অগ্রগতির কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিশ্ব সম্প্রদায় আমাদের দিকে তাকাচ্ছে। উদীয়মান এশিয়া বিশ্বকে শান্তি ও সমৃদ্ধির দিকে নিয়ে যাবে, নতুন করে গড়ে তুলবে।ভবিষ্যৎ নিয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করে তিনি বলেন, ঐকমত্য, শান্তি ও বন্ধুত্ব সব নৈরাজ্য ধ্বংস এবং মতভেদ দূর করে দিতে পারে

Please follow and like us:
error0

এই বিভাগের অন্যান্য খবরঃ

যে কেউ আমার কাছে আসতে পারবেন-প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
শবে বরাতঃ করণীয় ও বর্জনীয়!
আগামীকাল শুক্রবার পবিত্র রমজানের শেষ জুম'আ!
রোহিঙ্গা নারীরা জড়িয়ে পড়ছে যৌন ব্যবসায়, বেড়েছে পাচার
টেকনাফে গ্রাম পুলিশের নির্বাচনী প্রস্তুতিমূলক সভা অনুষ্ঠিত
স্থানীয়দের সহযোগিতায় জেলে সেজে মিয়ানমার থেকে ইয়াবা নিয়ে আসছে রোহিঙ্গার!
ঈদ পরবর্তী সর্ব-সাধারণের সাথে সৌজন্য সাক্ষাত ও মত বিনিময় করেন সাবেক এমপি বদি
টেকনাফে পুলিশের সাথে বন্ধুকযুদ্ধে ইয়াবা কারবারী মালেক নিহত !
টেকনাফ সদরে ৫হাজার ২শ নারীকে ভিজিডির চাল বিতরণ করেন- শাহীন বদি এমপি
বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদন
ড. কামাল বেপরোয়া ড্রাইভারের মতো আচরণ করছেন: কাদের
জন্মদিনে যারা শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তাদের সবার জন্য দোয়া রইলো: মোঃ আলমগীর