1. engg.robel.seo@gmail.com : DAILY TEKNAF : DAILY TEKNAF
  2. bandhusheramizan@gmail.com : Mizanur Rahman : Mizanur Rahman
  3. engg.robel@gmail.com : The Daily Teknaf News : Daily Teknaf
কক্সবাজার জেলার ৭৫ হাজার পরিবারকে প্রধানমন্ত্রীর উপহার দেওয়া হবে | ডেইলি টেকনাফ - ডেইলি টেকনাফ
সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১, ০৩:৩২ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ :
ঢাকা-১৪ আসনের এমপি আসলামের মৃত্যুতে সাবেক এমপি বদি’র শোক প্রকাশ লকডাউন অমান্য কারিদের বিরুদ্ধে অভিযানে নেমেছে টেকনাফ উপজেলা প্রসাশন Inauguration of office of Scrap Business Association in Teknaf in collaboration with Practical Action পাঠক শুনবেন কি? টেকনাফে প্রাকটিক্যাল এ্যাকশনের সহযোগিতায় স্ক্র্যাপ ব্যবসায়ী সমিতির অফিস উদ্বোধন দ্বিতীয়বার করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে সাবেক এমপি বদি দেশ’বাসীর কাছে দোয়া কামনা টেকনাফ সদর মৌলভী পাড়ার জোসনা বেগম গত ৫দিন ধরে নিখোঁজ,অভিযুক্ত রিয়াজের সন্ধান পেতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা টেকনাফে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে ১১ হাজার ৫৫০ টাকা জরিমানা আদায় জনসমর্থনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা করলেন নুর হোসেন চেয়ারম্যান টেকনাফে ৯৮ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল

কক্সবাজার জেলার ৭৫ হাজার পরিবারকে প্রধানমন্ত্রীর উপহার দেওয়া হবে | ডেইলি টেকনাফ

  • আপডেট টাইম বৃহস্পতিবার, ১৪ মে, ২০২০

ডেইলি টেকনাফ ডেস্ক::

কক্সবাজার জেলার ৮ উপজেলা ও ৪ টি পৌরসভার ৭৫ হাজার পরিবারেরকে ১৮ কোটি ৭৫ লক্ষ টাকা নগদ প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসাবে দেওয়া হবে। এতে তালিকাভুক্ত প্রতিটি পরিবার নগদ ২ হাজার ৫০০ টাকা করে পাবে। এ অর্থ করোনা সংকটে অসহায় হয়ে পড়া তালিকাভুক্ত পরিবারের সদস্যদের মোবাইল নম্বরে শিওরক্যাশ, নগদ, ইউক্যাশ, বিকাশ সহ ৪ টি অর্থ লেনদেনকারী অপারেটরের মাধ্যমে আপনাআপনি উপকারভোগীদের মোবাইল হিসাবে চলে যাবে। কক্সবাজার সহ সারাদেশের এই মানবিক সহায়তা কার্যক্রম প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ১৪ মে বৃহস্পতিবার উদ্বোধন করবেন।

কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন ১৩মে বুধবার এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি আরো জানান, সারাদেশের সাথে কক্সবাজার জেলার তালিকাভুক্ত পরিবারের মধ্য থেকে প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সে ৮৯ জন উপকারভোগীকে মোবাইলে ক্যাশ ব্যালেন্স প্রদানের মাধ্যমে কক্সবাজার জেলার এ কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন করবেন।

জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন আরো জানান, ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার, চেয়ারম্যান, পৌরসভার কাউন্সিলর, মেয়রের মাধ্যমে ইতিমধ্যে তৈরি করা ৭৫ হাজার পরিবারের উপকারভোগীর প্রাথমিক তালিকা স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সাথে প্রাইমারি স্কুলের শিক্ষকদের দিয়ে যাচাই বাচাই করা হবে। তালিকার ছোটখাটো ত্রুটি সমুহ, যেমন মোবাইল ফোন নাম্বার, জাতীয় পরিচয় পত্র নাম্বার ইত্যাদি ভুল থাকলে সেগুলো সংশোধনের পর চুড়ান্ত তালিকাটি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠিয়ে দেওয়া হবে। কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে অনুমোদন সাপেক্ষে আগামী ৪/৫ দিনের মধ্যেই তালিকাভুক্ত ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মোবাইল ফোনের হিসাবে অপারেটরের মাধ্যমে নগদ আড়াইহাজার টাকা করে পাঠিয়ে দেওয়া হবে। তিনি আরো বলেন, এটি বাংলাদেশের জন্য সম্পূর্ণ নতুন উদ্ভাবিত একটি পদ্ধতি। জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন জানান, দেশের আইসিটি বিভাগ সুষ্ঠু, শৃংখলা ও সুন্দরভাবে ত্রাণ বিতরণের লক্ষ্যে এই নতুন সফটওয়্যার উদ্ভাবন করেছে। ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের এই সফটওয়্যারে প্রতিটি উপকারভোগী পরিবারের ২৪টি করে তথ্য দিতে হয়েছে। এ পদ্ধতিতে নগদ অর্থ বিতরণে অনিয়ম ও কারচুপির কোন আশংকা নেই।

কক্সবাজার জেলার করোনা সংকটে সার্বিক সমন্বয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুউদ্দীন আহমদের সভাপতিত্বে গত ৩মে অনুষ্ঠিত সভায় নেওয়া সিদ্ধান্ত অনুযায়ী উপজেলা ও পৌরসভার জনসংখ্যা অনুপাতে উপকারভোগীদের তালিকা তৈরি করা হয়েছে বলে জানান, জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন।

আপনার মন্তব্য দিন

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..