1. engg.robel.seo@gmail.com : DAILY TEKNAF : DAILY TEKNAF
  2. bandhusheramizan@gmail.com : Mizanur Rahman : Mizanur Rahman
  3. engg.robel@gmail.com : The Daily Teknaf News : Daily Teknaf
শনিবার, ২৮ মার্চ ২০২০, ০২:১৯ অপরাহ্ন
সর্বশেষ :
অল্প আয়ের মানুষের পাশে অপু বিশ্বাসⓂডেইলি টেকনাফ ঘরভাড়া মওকূফ করে মানবিকতার পরিচয় দিলেন সাবেক এমপি বদি Ⓜ ডেইলি টেকনাফ হায়রে মৃত্যু : সাইফুল ইসলাম Ⓜ ডেইলি টেকনাফ আমরা আছি আপনাদের পাশে,সকলকে খাদ্য পৌঁছে দেবো :সরওয়ার কমল এমপি বিএনপি নেতা সানাউল্লাহ মিয়া আর নেইⓂডেইলি টেকনাফ সাধারণ সর্দি কাশিতে ডা.টিটু চন্দ্র শীলের ব‍্যবস্থাপত্র Ⓜ ডেইলি টেকনাফ গুজবে বিভ্রান্ত না হয়ে করোনা মোকাবেলায় প্রশাসনকে সহযোগিতা করুন : নুর হোসেন বিএ নিস্তব্ধ নিরভ রাতে হঠাৎ আযানের ধ্বনিতে জনমনে কৌতুহলⓂডেইলি টেকনাফ করোনা:প্রশাসনের নির্দেশনা মেনে যানবাহন ও জনমানবশূন্য টেকনাফ Ⓜ ডেইলি টেকনাফ মহান স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা ও করোনা মোকাবেলায় সম্মিলিত সহযোগিতা কামনা Ⓜ ডেইলি টেকনাফ

কক্সবাজার সৈকতের সুগন্ধা পয়েন্টে ফিস ফ্রাই খেয়ে এক পর্যটকের মৃত্যু!!

  • আপডেট টাইম শনিবার, ১৪ মার্চ, ২০২০

শাহজাহান চৌধুরী শাহীন। কক্সবাজার।।

কক্সবাজার সৈকতের সুগন্ধা পয়েন্টে ফিস ফ্রাই (ভাজা মাছ) খেয়ে এক পর্যটকের মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার রাত ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটেছে।
সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার রাত ৯ টার দিকে কক্সবাজার সৈকতের সুগন্ধা পয়েন্টে ফিস ফ্রাই (ভাজা মাছ) খান ফেরদৌস আলম পর্যটক দম্পতি। সামুদ্রিক মাছ ভাজা (ফিস ফ্রাই) খেয়ে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়ে পর্যটক ফেরদৌস আলমকে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতলে নিয়ে আসলে সেখানে তার মৃত্যু হয়।
মারা যাওয়া পর্যটকের নাম
ফেরদৌস আলম (৩৮)। তিনি সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার মসজিদ সড়ক এলাকার রফিউল আলমের ছেলে। চাকরি সূত্রে বর্তমানে তারা থাকতেন ঢাকা মিরপুর-১আনসার ক্যাম্প আহম্মদ নগর পাইকপাড়া এলাকায়।
মৃত পর্যটকের স্ত্রী ফারজানা আকতার জানিয়েছেন, তারা স্বপরিবারে শুক্রবার সকালে কক্সবাজার পৌঁছেন। তারা কলাতলীর সুগন্ধা পয়েন্টে কক্স-ইন হোটেলের ৩০৪ নং কক্ষে উঠেন। হোটেল থেকে শুক্বার সন্ধ্যার তারা ঘুরতে বের হয়ে সুগন্ধা পয়েন্টে গিয়ে ডাব ও ফিস ফ্রাই ( ভাজা মাছ) খান।
কিছুক্ষণ পর তার স্বামী অসুস্থ বোধ করেন । ফেরদৌস আলমে স্থানীয় একটি ফার্মেসীতে দেখানো হলে,তারা তাকে দ্রুত হাসপাতালে নেয়ার পরামর্শ দেন।
রাত ৯টার দিকে ফেরদৌস আলমকে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে আনা হলে সেখানে তার মৃত্যু হয়।
কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালের দায়িত্বরত চিকিৎসক এসএম নাওশাদ রিয়াদ জানান, ওই পর্যটকে হাসপাতালের আনার আগেই তাঁর মৃত্যু হয়েছে। মৃতদেহ প্রাথমিক পরীক্ষা করে ধারণা করা হচ্ছে, হৃদরোগ অথবা খাবারে বিষক্রিয়ায় তার মৃত্যু হতে পারে। তবে ময়না তদন্তের পর বিস্তারিত জানা যাবে।
কক্সবাজার সদর মডেল থানার ওসি সৈয়দ আবু মো. শাহজাহান কবির বলেন, হাসপাতাল থেকে পর্যটকের মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে রাখা হয়েছে।

আপনার মন্তব্য দিন

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..