1. engg.robel.seo@gmail.com : DAILY TEKNAF : DAILY TEKNAF
  2. bandhusheramizan@gmail.com : Mizanur Rahman : Mizanur Rahman
  3. engg.robel@gmail.com : The Daily Teknaf News : Daily Teknaf
করোনার বিরুদ্ধে কার্যকর "আভিগান" জানালেন জাপানি প্রধানমন্ত্রী - ডেইলি টেকনাফ
শুক্রবার, ০৫ মার্চ ২০২১, ০৩:১২ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ :
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমামের মৃত্যুতে সাবেক এমপি বদি’র শোক! প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমামের মৃত্যুতে নুর হোসেন চেয়ারম্যানের শোক কক্সবাজারে কাউন্সিলর কাজি মোরশেদ আহমদ বাবুর মৃত‍্যুতে নুর হোসেন চেয়ারম্যানের শোক প্রকাশ ন্যায্যমূল্য পাচ্ছে না কক্সবাজারসহ টেকনাফের লবণ চাষীরা টেকনাফে সাবরাং ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত অমর একুশের ভাষা শহীদদের প্রতি নুর হোসেন চেয়ারম্যানের শ্রদ্ধাঞ্জলি প্রতি হিংসা নয় প্রতিযোগিতার মাধ্যমে উঠে আসুক তৃণমূলের অবহেলিত নতুন নেতৃত্ব: শাওন আরমান টেকনাফে বিজিবির মালিকবিহীন ইয়াবা উদ্ধার টেকনাফে সাবরাং ট্যুরিজম পার্কে পাঁচ তারকা হোটেল নির্মাণের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন টেকনাফ পৌরসভায় মূলধন বিনিয়োগ পরিকল্পনা প্রস্তুতি কর্মশালা সভা অনুষ্ঠিত

করোনার বিরুদ্ধে কার্যকর “আভিগান” জানালেন জাপানি প্রধানমন্ত্রী

  • আপডেট টাইম শনিবার, ১১ এপ্রিল, ২০২০

নিউজ ডেস্ক ::

করোনা থেকে মুক্তি পেতে বিশ্বের তামাম ওষুধ কোম্পানি ব্যস্ত প্রতিষেধক আবিষ্কার করতে। আপাতত জাপানের ওষুধ আভিগান ও ভারতের ওষুধ হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন। এর মধ্যেই জাপানের প্রধানমন্ত্রী গবেষকদের বরাত দিয়ে দাবি করেছেন, করোনার সংক্রমণ থেকে রোগীকে সুস্থ করে তুলতে দারুণ কার্যকর ওষুধ আভিগান। অবশ্য এর আগে চীনা চিকিৎসকরা দাবি করেছিলেন আভিগান করোনায় দারুণ কার্যকর প্রতিষেধক।

এবার জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে করোনার ওষুধ আভিগানের কার্যকারিতা নিশ্চিত করেছেন। করোনাভাইরাসের প্রতিষেধক হিসেবে জাপানি ওষুধ আভিগানের ক্লিনিকাল পরীক্ষায় সাফল্য পাওয়ার পর তিনি এর কার্যকারিতা নিশ্চিত করেন। এটি সত্যি হলে তা হতে যাচ্ছে পৃথিবীর জন্য বড় একটি খুশির সংবাদ।

গবেষকরা দাবি করেছেন, ৩০ বছরের রোগীদের সাত দিনেই সুস্থ হওয়ার প্রমাণ মিলেছে আভিগান ব্যবহারের ফলে। তবে সন্তান সম্ভবা নারীদের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ার সম্ভাবনা থাকায় তা প্রয়োগ করা হয়নি। আভিগানের জেনেরিক নাম ফাভিপিরাভি, এর ক্লিনিক্যাল পরীক্ষার প্রথম দুটি রাউন্ডে ভালো ফলাফল পাওয়া গেছে। করোনাভাইরাসে এটি প্রথম প্রমাণিত চিকিৎসা হতে পারে, এমন প্রত্যাশায় জাপানে করোনা আক্রান্ত ১২০ জন রোগীর দেহে এটি পরীক্ষামূলক প্রয়োগের পর পাওয়া গেছে সফলতা। গবেষকদের মতে, এটি কভিড-১৯ সৃষ্টিকারী ভাইরাসের বিরুদ্ধেও অ্যান্টিভাইরাস প্রভাব ফেলতে পারে। জায়ান্ট ফুজিফিল্মের সহযোগী প্রতিষ্ঠান টোয়ামা এর রাসায়নিক শাখা ‘আভিগান’ ওষুধটি উৎপাদনকরে। দেহে ফ্লু জাতীয় ভাইরাস প্রতিরোধে এই ওষুধটা আগে  থেকেই জাপানে অনুমোদিত ছিল।

চীনে করোনা চিকিৎসায়ও দারুণ কাজ করেছিল এই অ্যাভিগান। জাপান দীর্ঘদিন ধরেই এ ওষুধটি নিয়ে গবেষণা চালিয়ে আসছিল। বর্তমানে আরও ২০টি দেশে জাপানের অর্থ ও টেকনিকাল সহায়তায় আভিগানের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল চলছে

করোনা চিকিৎসায় মানবিক সাহায্য হিসেবে বিনা পয়সায় জাপান আভিগান দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে।
আরও কিছু পরীক্ষার পর জাপান করোনা চিকিৎসায় আভিগান ফলপ্রসূ ওষুধ বলে ঘোষণা দিলে বিশ্বব্যাপী  যে চাহিদা সৃষ্টি হবে সেটা ভেবেই বাণিজ্যিক উৎপাদন বাড়িয়ে দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। অন্য দেশগুলোতেও জাপান তা উৎপাদনের অনুমতি দেবে বলে জানিয়েছে। এমনকি বাংলাদেশেও উৎপাদিত হবে বলে জানা গেছে।

সুত্র:বাংলাদেশ প্রতিদিন।

আপনার মন্তব্য দিন

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..