1. engg.robel.seo@gmail.com : DAILY TEKNAF : DAILY TEKNAF
  2. bandhusheramizan@gmail.com : Mizanur Rahman : Mizanur Rahman
  3. engg.robel@gmail.com : The Daily Teknaf News : Daily Teknaf
টেকনাফে দ্বিতীয় দফায় আত্মস্বীকৃত ২১ ইয়াবা ও হুন্ডি কারবারীর আত্মসমর্পণ - ডেইলি টেকনাফ
শনিবার, ০৬ মার্চ ২০২১, ০১:২৫ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ :
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমামের মৃত্যুতে সাবেক এমপি বদি’র শোক! প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমামের মৃত্যুতে নুর হোসেন চেয়ারম্যানের শোক কক্সবাজারে কাউন্সিলর কাজি মোরশেদ আহমদ বাবুর মৃত‍্যুতে নুর হোসেন চেয়ারম্যানের শোক প্রকাশ ন্যায্যমূল্য পাচ্ছে না কক্সবাজারসহ টেকনাফের লবণ চাষীরা টেকনাফে সাবরাং ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত অমর একুশের ভাষা শহীদদের প্রতি নুর হোসেন চেয়ারম্যানের শ্রদ্ধাঞ্জলি প্রতি হিংসা নয় প্রতিযোগিতার মাধ্যমে উঠে আসুক তৃণমূলের অবহেলিত নতুন নেতৃত্ব: শাওন আরমান টেকনাফে বিজিবির মালিকবিহীন ইয়াবা উদ্ধার টেকনাফে সাবরাং ট্যুরিজম পার্কে পাঁচ তারকা হোটেল নির্মাণের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন টেকনাফ পৌরসভায় মূলধন বিনিয়োগ পরিকল্পনা প্রস্তুতি কর্মশালা সভা অনুষ্ঠিত

টেকনাফে দ্বিতীয় দফায় আত্মস্বীকৃত ২১ ইয়াবা ও হুন্ডি কারবারীর আত্মসমর্পণ

  • আপডেট টাইম বুধবার, ৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২০

খাঁন মাহমুদ আইউব

বহু প্রতিক্ষার শেষে অবশেষে কক্সবাজারের টেকনাফে ২১ ইয়াবা ও হুন্ডী কারবারী দ্বিতীয় দফায় আত্মসমর্পণ করেছে। আত্মসমর্পনকারীদের ইয়াবা ও অস্ত্রসহ পৃথক দুটি মামলায় আটক দেখিয়ে কক্সবাজার জেলা কারাগারে পাঠানো হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ সূত্র।

আজ সোমবার দুপুর ২টার দিকে টেকনাফ সরকারী কলেজ মাঠে ঝাঁকঝমক পূর্ণ এক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক বিপিএম (বার), পিপিএম’র হাতে ২১ হাজার পিস ইয়াবা ও ১০টি অগ্নেয়াস্ত্র জমা দিয়ে আত্মসমর্পণ করেন তারা।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পুলিশের ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক- হোক সে প্রশানের লোক বা কমিউনিটি পুলিশ নেতা বা সদস্য, মাদক ব্যবসায় সংশ্লিষ্টতা পেলে কাউকে ছাড় ছাড় দেয়া হবেনা বলে হুশিয়ারী উচ্চারন করেন। মাদক নির্মূলে পুলিশ বাহিনীকে আরো কঠোর হওয়ার নির্দেশ দেন। তবে কোন নিরীহ লোক যেনো কোন ভাবেই হয়রানীর শিকার না হয় সেদিকে সতর্ক থাকাও নির্দেশ দেন।
জেলা পুলিশ সুপার এবিএম মাদুস হাসানের সভাপতিত্বে অনুষ্টিত সভায় বিশেষ অথিতি বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা, জেলা কমিউনিটি পুলিশের সভাপতি সাংবাদিক তোফায়েল আহমদ, সাধারন সম্পাদক সোহেল আহমদ বাহাদুর, টেকনাফ পৌরসভার মেয়র হাজী মো. ইসলাম, টেকনাফ আল জামেয়ার পরিচালক মুফতি কিফায়াত উল্লাহ শফিকসহ প্রমুখ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন টেকনাফ থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ।
আত্মসমর্পনকারীরা হলেন- টেকনাফ সদর ইউনিয়নের মৌলভীপাড়া এলাকার মৃত লাল মিয়ার ছেলে আবুল কালাম উরফে কালা সওদাগর, একই গ্রামের মৃত আমির হোসেনের ছেলে আব্দুল আমিন আবুল, সুলতান আহমদের ছেলে বশির আহমদ, ফজল আহমদের ছেলে রিদুয়ান, ফজল আহমদের ছেলে আব্দু রাজ্জাক, সৈয়দ হোসেনের ছেলে মোহাম্মদ রাসেল উরফে হাজী রাসেল, রুহুল আমিনের ছেলে ফজল করিম, সাবরাং ইউনিয়নের লেজির পাড়া এলাকার মকতুল হোসেনের ছেলে মো. ইদ্রিস, সিকদার পাড়ার ছৈয়দুর রহমানের ছেলে আব্দুল গফুর, একই গ্রামের আমির হোসেনের ছেলে মো. হোসেন উরফে কালু, টেকনাফ পৌর সভার লামার বাজার এলাকার বার্মাইয়া জলিলের ছেলে মো. ইসমাইল, সাবরাং খয়রাতী পাড়া এলাকার আবুল কালামের ছেলে মো. সাদ্দাম, সদর ইউনিয়নের উত্তর লম্বরী জহির আহমদের ছেলে মো. তৈয়ুব উরফে মধু তৈয়ুব, হ্নীলা ইউনিয়নের ফুলের ডেইল এলাকার ফকির আহমদের ছেলে নূর মোহাম্মদ, একই ইউনিয়নের সিকদার পাড়ার নুর কবিরের ছেলে ইমাম হোসেন, হোয়াইক্যং উত্তর পাড়ার মৃত আব্দু শুকুরের ছেলে ফরিদ আলম, কক্সবাজার ঝিলংজা ইউনিয়নের পশ্চিম লার পাড়া এলাকার মৃত আবুল হোসেন সওদাগরের ছেলে ইমাম হোসেন, সদর ইউনিয়নের নুরুল ইসলামের ছেলে সাহাদাৎ হোসাইন, পৌরসভার পুরাতন পল্লান পাড়ার মো. কামালের ছেলে আব্দুল নূর, সদর ইউনিয়নের মাঠ পাড়া এলাকার ফজলুর রহমানের ছেলে মো. জাহাদ উল্লাহ, হ্লীলা ইউনিয়নের উলু চামুরী কোনা পাড়ার আবুল কালামের ছেলে মিজানুর রহমান।
আত্মসমর্পনকারীদের বিরুদ্ধে টেকনাফ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ বাদী হয়ে ইয়াবা ও অস্ত্রসহ দুটি মামলা প্রস্তুতির প্রক্রিয়া চলছে। এই দু’মামলায় আটক দেখিয়ে সবাইকে কক্সবাজার জেলা কারাগারে পাঠানো হবে বলে জানিয়েছে পুলিশের দায়িত্বশীল সূত্র।

আলোকিত টেকনাফ

আপনার মন্তব্য দিন

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..