1. engg.robel.seo@gmail.com : DAILY TEKNAF : DAILY TEKNAF
  2. bandhusheramizan@gmail.com : Mizanur Rahman : Mizanur Rahman
  3. engg.robel@gmail.com : The Daily Teknaf News : Daily Teknaf
শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০, ০৯:১০ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ :
টেকনাফের ইতিহাস ঐতিহ্য ও সমসাময়িক ভাবনা টেকনাফে শাহপরীর দ্বীপের বেড়িবাধ পুনঃনির্মাণ প্রকল্প পরিদর্শন করেন এমপি শাওন। হোয়াইক্যং নয়াবাজারের মহিয়সী নারী শামসুন নাহারের ২২তম মৃত্যু বার্ষিকী আজ মাওলানা গোলাম সারোয়ার সাঈদীর ইন্তেকাল শাহ্পরীর দ্বীপে হতদরিদ্রদের মাঝে(IOM)সংস্থার নগদ ৩৫ হাজার টাকা বিতরণ উদ্বোধন করেন নুর হোসেন চেয়ারম্যান আব্দুর রহমানের মৃত্যুতে টেকনাফ উপজেলা রেন্ট-এ কার,নোহা,মাইক্রো মালিক সমবায় সমিতির শোক প্রকাশ ইসলামপুর ইউপি নির্বাচনে সম্ভাব্য চেয়ারম্যান পদে নতুন মুখ সাংবাদিক শাহাজাহান শাহীন ভাল থেকো আব্বু টেকনাফে সাবরাং নয়াপাড়ায় ৬ষ্ঠ শ্রেনীর ছাত্রীকে ধর্ষণ ও অপহরণকারী সাইফুল ইসলামকে ধরিয়ে দিতে সাহায্য করুন আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় শীঘ্রই অভিযান পরিচালনা করা হবে, ওসি টেকনাফ

বসন্তের আগমনী বার্তা !!

  • আপডেট টাইম শুক্রবার, ২৪ জানুয়ারী, ২০২০

(ফাল্গুন আসতে এখনো বাকি। এরই মধ্যে মুকুল দেখা দিয়েছে গ্রামগঞ্জের অনেক আম গাছে)



      মিজানুর রহমান মিজান 
শীতের শেষে উঁকি দিচ্ছে বসন্ত। আকুল করে তুলেছে প্রকৃতিকে। দখিনা বাতাস আর প্রকৃতিজুড়ে আগুন ঝড়া রঙের প্রাবল্য। ঝড়াপাতা ধুলায় লটিয়ে নতুন কুড়ি উঁকি দিচ্ছে আকাশপানে। আর তার দোলা লেগেছে মানব মনে।এক ভালোলাগার অনুভব মনের গহীনে।

গাছে গাছে নতুন কুড়ি আর নানান রঙের বাহারি ফুলে জানিয়ে দিচ্ছে, বসন্ত এসে গেছে। প্রকৃতির কোল জুড়ে তাই ঋতুরাজ বসন্তের আগমনী বার্তা।

শীতের আড়মোড়া ভেঙে, রুক্ষ, শুষ্কতার ক্ষণকে বিদায় করে শিমুল পলাশের বাসন্তী আভায় নিজেকে সাজিয়ে নিয়েছে প্রকৃতি।

যদিও পঞ্জিকার হিসেবে আরো কিছু দিন বাকি, ঋতুরাজকে বরণ করে নেবার জন্য। কিন্তু প্রকৃতির যেন তাতে সায় নেই। দক্ষিণ দুয়ার খুলে বসন্তকে বরণ করে নেবার সাজ সাজ রব পড়েছে সর্বত্রই।

রঙিন হয়ে ওঠা প্রকৃতির এই মধুর দোলায় দুলে উঠেছে সিমান্তের রুপের রানীখ‍্যাত নিজস্ব ঐতিহ্যে সমৃদ্ধ নদীর কলতানে সাগরের গর্জনে প্রকৃতির অপরূপে অনন‍্যা উপকূল ঘেরা এই জনপদ কক্সবাজারের টেকনাফের প্রকৃতিপ্রেমী মানুষের অন্তর।
যদিও সুজলা সুফলা শস‍্য শেমলা আমার মায়ের গ্রামের মতো ইট কাঠের নগরীতে প্রকৃতির খুব একটা পরিসর নেই। তারপরও, যেটুকু রয়েছে, আন্দোলিত করে তুলেছে প্রকৃতিপ্রেমীদের।

বাহারি সাজে সেজে চারপাশকে আরেকটু রাঙিয়ে দিতে কোথাও বা ডেকে উঠছে কোকিল। নাগরিক জীবনের যান্ত্রিকতার ছন্দ ভেঙে। কানে কানে বলছে, বসন্ত এসে গেছে।

“হে কবি , নিরব কেন ফাগুন যে এসেছে ধরায়, বসন্তে বরিয়া তুমি লবে না কি তব বন্দনায়?” সত্যিই ফুঠে উঠেছে আজ কবি সুফিয়া কামালের সেই চিরন্তন বাণী। কবি সুফিয়া কামালের মনে দুঃখ ছিল তার পুর্বের প্রিয় মানুষটির হারানোর বেদনায়, কিন্তু বসন্তের আগমনের বার্তা মানেই পরিবর্তনের আভাস, বসন্ত শীতের জড়তাকে ঝেটিয়ে বিদায় করে, গাছেরা আড়মোড়া ভাঙ্গে, পুরনো পাতা ঝরে ফেলে গাছের ন্যাড়া মাথায় গজায় সবুজ কচি কচি পাতা, গাছে গাছে নতুন ফুলের কুঁড়ি, নতুন ফুল ফুটে নানা রঙ বেরঙের, পাখির কলতান, কোকিলের সুমধুর রব কুহু কুহু ডাকা যেন নতুনের এক আগমনী বার্তা। প্রকৃতি সাজে নতুন এক অপরূপ সাজে যেমন সাজে নববধুরা। তাই তো তরুণ তরুণীদের জন্য বসন্তের আগমন এক বিশেষ বার্তা বহন করে। বসন্তের আগেই শীত। সেই শীত কারো জন্য যেমন আরামদায়ক তেমনি কারো জন্য হাড় কাঁপানো। তারপরেও বিশেষ করে গরমের চেয়ে শীতে গ্রাম এলাকায় দেশের জন্য অনেকটাই ভাল। গ্রাম এলাকায় তৈরি নববধুরা তৈরি করে নানা ধরণের সুস্বাধু পিঠা পুলি ও মিষ্টান্ন জাতীয় খাবার।

গরমের যে প্রভাব তারচেয়ে শীতের প্রভাব কম আর শীতের চেয়ে বসন্তের প্রভাব সামান্যই। বসন্তকে উপভোগ করতে না করতেই চলে আসে গ্রীষ্মকাল, প্রচন্ড তাপদাহ, রাস্তা ফেটে হয় চৌচির, ক্লান্ত পথিকের ডাবের জল বা ঠান্ডা এক গ্লাস জল হয়ে ওঠে তখন বড় এক আকাঙ্খিত আরাধ্য বস্তু। তারপরেও বসন্তের আগমন গরমের বার্তা নয় বরং বসন্তের আগমন নতুন এক বার্তা। বসন্তের এই সময়টাকে বলা হয় নাতিশীতোষ্ণ কাল।
বসন্তের এই প্রথম দিনে আলিঙ্গন করি ঋতুরাজ বসন্তের আগমনে একে অপরকে জানাবে শুভকামনা।

আপনার মন্তব্য দিন
এ জাতীয় আরো খবর..