1. engg.robel.seo@gmail.com : DAILY TEKNAF : DAILY TEKNAF
  2. bandhusheramizan@gmail.com : Mizanur Rahman : Mizanur Rahman
  3. engg.robel@gmail.com : The Daily Teknaf News : Daily Teknaf
শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০, ০৯:১৫ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ :
টেকনাফের ইতিহাস ঐতিহ্য ও সমসাময়িক ভাবনা টেকনাফে শাহপরীর দ্বীপের বেড়িবাধ পুনঃনির্মাণ প্রকল্প পরিদর্শন করেন এমপি শাওন। হোয়াইক্যং নয়াবাজারের মহিয়সী নারী শামসুন নাহারের ২২তম মৃত্যু বার্ষিকী আজ মাওলানা গোলাম সারোয়ার সাঈদীর ইন্তেকাল শাহ্পরীর দ্বীপে হতদরিদ্রদের মাঝে(IOM)সংস্থার নগদ ৩৫ হাজার টাকা বিতরণ উদ্বোধন করেন নুর হোসেন চেয়ারম্যান আব্দুর রহমানের মৃত্যুতে টেকনাফ উপজেলা রেন্ট-এ কার,নোহা,মাইক্রো মালিক সমবায় সমিতির শোক প্রকাশ ইসলামপুর ইউপি নির্বাচনে সম্ভাব্য চেয়ারম্যান পদে নতুন মুখ সাংবাদিক শাহাজাহান শাহীন ভাল থেকো আব্বু টেকনাফে সাবরাং নয়াপাড়ায় ৬ষ্ঠ শ্রেনীর ছাত্রীকে ধর্ষণ ও অপহরণকারী সাইফুল ইসলামকে ধরিয়ে দিতে সাহায্য করুন আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় শীঘ্রই অভিযান পরিচালনা করা হবে, ওসি টেকনাফ

ভিডিও সম্পর্কে আবদুল্লাহ আল মাসুদ রুমেলের বক্তব্য

  • আপডেট টাইম শুক্রবার, ৩ এপ্রিল, ২০২০

আমি আবদুল্লাহ আল মাসুদ রুমেল সদ্য প্রয়াত এতদঞ্চলের বিশিষ্ট সমাজ সেবক নুরুল হুদা চৌধুরীর পুত্র। আমার আব্বা দীর্ঘদিন ধরে দুরারোগ্য ব্যাধিতে ভোগার পর গত ২৮ ফেব্রুয়ারি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। পিতার মৃত্যু শোকে বর্তমানে আমার মাও অসুস্থ। এমতাবস্থায় কাল হঠাৎ করে কে বা কারা ২০১২ সালের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছাড়িয়ে দেয়। ভিডিওটি আমার নিজের হাতে করা। এটি ছিল একটি চুরির ঘটনার স্বীকারোক্তি। ২০১২ সালের কোন একদিন আমার মরহুম আব্বা ও আমি হজ্জে যাওয়ার জন্য গচ্ছিত ১ লাখ টাকা চুরি করে পালিয়ে যায় ওই কাজের মেয়ে। এ ব্যাপারে কক্সবাজার থানায় সাধারণ ডাইরি করা হয়। পরে পুলিশ মেয়েটিকে উদ্ধার করে আমাদের হাতে তুলে দেয়। মেয়েটিকে বাসায় নিয়ে আসার পর রাগান্বিত মাথায় আমার মা( বর্তমানে অসুস্থ) তাকে বকাবকির এক পর্যায়ে তাকে মারধর করে। মেয়েটির টাকা চুরির স্বীকারোক্তিসহ সবকিছু আমি ভিডিও করে রাখি। কিন্তু ভিডিওটি এডিট করে, তার স্বীকারোক্তি বাদ দিয়ে শুধু তাকে মারধর করার ভিডিওটি বিকৃত করে কে বা কারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছেড়ে দেয়। ঘটনার ৮ বছর পর কুচক্রী গোষ্ঠী উদ্দেশ্য প্রণোদিত ভাবে আমাদের পরিবারকে সামাজিক ভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য এটি সামাজিক মাধ্যমে ছেড়েছে। তাপরও আমি সংঘটিত ঘটনার জন্য দু:খিত, অনুতপ্ত। এখানে সকলের জ্ঞাতার্থে একটি কথা বলতে চাই, ২০১২ সালের ঘটনা ও আজকের প্রেক্ষাপট সম্পূর্ণ ভিন্ন। ওইসময় আমার আব্বা ছিল। আম্মাও সুস্থ ছিল। এখন আব্বা জীবিত নেই। আব্বার মৃত্যুর পর আম্মাও অসুস্থ। এমতাবস্থায় ৮ বছর আগের বিকৃত ভিডিও নিয়ে কাউকে বিভ্রান্ত না হওয়ার অনুরোধ জানাচ্ছি এবং সার্বিক দিক বিবেচনা করে বিষয়টি ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখার জন্য বিনীত অনুরোধ জানাচ্ছি।

বিনীত

আবদুল্লাহ আল মাসুদ রুমেল পিতা- মরহুম নুরুল হুদা চৌধুরী, বদরমোকাম, কক্সবাজার।

আপনার মন্তব্য দিন
এ জাতীয় আরো খবর..