1. engg.robel.seo@gmail.com : DAILY TEKNAF : DAILY TEKNAF
  2. bandhusheramizan@gmail.com : Mizanur Rahman : Mizanur Rahman
  3. engg.robel@gmail.com : The Daily Teknaf News : Daily Teknaf
মধ‍্যবিত্ত || ডেইলি টেকনাফ - ডেইলি টেকনাফ
রবিবার, ১১ এপ্রিল ২০২১, ০৮:০৩ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ :
ঢাকা-১৪ আসনের এমপি আসলামের মৃত্যুতে সাবেক এমপি বদি’র শোক প্রকাশ লকডাউন অমান্য কারিদের বিরুদ্ধে অভিযানে নেমেছে টেকনাফ উপজেলা প্রসাশন Inauguration of office of Scrap Business Association in Teknaf in collaboration with Practical Action পাঠক শুনবেন কি? টেকনাফে প্রাকটিক্যাল এ্যাকশনের সহযোগিতায় স্ক্র্যাপ ব্যবসায়ী সমিতির অফিস উদ্বোধন দ্বিতীয়বার করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে সাবেক এমপি বদি দেশ’বাসীর কাছে দোয়া কামনা টেকনাফ সদর মৌলভী পাড়ার জোসনা বেগম গত ৫দিন ধরে নিখোঁজ,অভিযুক্ত রিয়াজের সন্ধান পেতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা টেকনাফে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে ১১ হাজার ৫৫০ টাকা জরিমানা আদায় জনসমর্থনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা করলেন নুর হোসেন চেয়ারম্যান টেকনাফে ৯৮ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল

মধ‍্যবিত্ত || ডেইলি টেকনাফ

  • আপডেট টাইম রবিবার, ১২ এপ্রিল, ২০২০

মধ্যবিত্ত….সাইফুল ইসলাম

এই পৃথিবী দুই শ্রেণির মানুষের জন্য বসবাসের যোগ্য। এক হলো নিন্মবিত্ত অারেক হলো উচ্চবিত্ত। মধ্যবিত্ত নামে কোন শ্রেণি থাকা উচিত নয়। তবে মধ্যবিত্ত শ্রেণির মানুষের মধ্যে দুইটা জিনিস বেশি থাকে। প্রথমটি হলো ইগো আর দ্বিতীয়টি হলো লজ্জাবোধ। তারা জন্মের সময়েই একগাদা ইগো সাথে করে নিয়ে জন্মায়। আর লজ্জাবোধের কারণে জীবনে তাদের অনেক কিছু অপূর্ণ্য থেকে যায়।

মধ্যবিত্ত শ্রেণির মানুষ স্বপ্ন দেখতে দেখতে বড় হয় এবং একপর্যায়ে সে বুঝতে পারে জীবনটা স্বপ্ন নয়, জীবনটা হলো কঠিন বাস্তব। তারা সব সময় সুখ খোঁজে। তবে সুখ তাদের নিত্যসঙ্গী নয়। শুধু শুধু জীবনের মানে খুঁজে বেড়ায়। আর বেড়ানোটাই হলো তাদের স্বভাব।


আগের সংবাদ পড়ুনঃ করোনার প্রাদুর্ভাব থেকে জনগনকে সচেতন করতে টেকনাফ থানা পুলিশের প্রচারণা। ডেইলি টেকনাফ।


তারা অল্পতে তুষ্ট হতে পারে না।আবার অল্পতে অসন্তুষ্টুও থাকতে পারে না। তারা সবার কাছে ভালোবাসা খোঁজে কিন্তু,এটা তাদের কাছে অপরাধ।

মধ্যবিত্তরা কখনো উচ্চবিলাসী হতে পারে না। কারণ এটি তাদের জন্য গুনাহের পর্যায়ে পড়ে। তাদের আবেগ অত্যাধিক বেশি থাকে। কিন্তু তারা খুব ছোট থাকতেই আবেগকে গলা টিপে খুন করতে শিখে ফেলে। মধ্যবিত্ত পরিবারের এই আবেগপ্রবন,পাগলাটে,স্বপ্ন বিলাসী মানুষগুলোকে কেউ বুঝতে চায় না। তাদেরকেই সবকিছু সামলে চলতে হয়।

বর্তমানে মহামারী করোনা পরস্হিতিতেও মধ্যবিত্ত শ্রেণির মানুষেরা ইগো ও লোক লজ্জায় কারণে সবকিছু থেকে বঞ্চিত। এই দুঃসময়ে তাদের অনেক কিছুর চাহিদা রয়েছে। আর এই চাহিদার কথা কিন্ত তারা বলতে গিয়েও বলতে পারছে না আত্মসম্মানবোধ তাদের জড়িয়ে রেখেছে বিধায়। কেউ নিজ থেকেও তাদের খবর রাখে না। যারা খেয়াল ও খবর রাখার কথা তারা ভাবে মধ্যবিত্তরা মোটামুটি সচ্ছল। তারা নিজেদেরকে সামলিয়ে নিয়ে এই দূর্যোগ থেকে কাটিয়ে উঠতে পারবে।

আসলে কী মধ্যবিত্তরা এই দূর্যোগে কোন ধরনের সহযোগিতা ছাড়া নিজেদের ঠিকিয়ে রাখতে পারবে!দেখা যাক কী হয়? চলবে,,,,

লেখকঃ সাইফুল ইসলাম( 01818083534)

আপনার মন্তব্য দিন

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..