1. engg.robel.seo@gmail.com : DAILY TEKNAF : DAILY TEKNAF
  2. bandhusheramizan@gmail.com : Mizanur Rahman : Mizanur Rahman
  3. engg.robel@gmail.com : The Daily Teknaf News : Daily Teknaf
সেন্টমার্টিন যেতে লাগবে অনলাইনে নিবন্ধন - ডেইলি টেকনাফ
মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ১২:৪৬ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ :
ঢাকা-১৪ আসনের এমপি আসলামের মৃত্যুতে সাবেক এমপি বদি’র শোক প্রকাশ লকডাউন অমান্য কারিদের বিরুদ্ধে অভিযানে নেমেছে টেকনাফ উপজেলা প্রসাশন Inauguration of office of Scrap Business Association in Teknaf in collaboration with Practical Action পাঠক শুনবেন কি? টেকনাফে প্রাকটিক্যাল এ্যাকশনের সহযোগিতায় স্ক্র্যাপ ব্যবসায়ী সমিতির অফিস উদ্বোধন দ্বিতীয়বার করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে সাবেক এমপি বদি দেশ’বাসীর কাছে দোয়া কামনা টেকনাফ সদর মৌলভী পাড়ার জোসনা বেগম গত ৫দিন ধরে নিখোঁজ,অভিযুক্ত রিয়াজের সন্ধান পেতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা টেকনাফে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে ১১ হাজার ৫৫০ টাকা জরিমানা আদায় জনসমর্থনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা করলেন নুর হোসেন চেয়ারম্যান টেকনাফে ৯৮ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল

সেন্টমার্টিন যেতে লাগবে অনলাইনে নিবন্ধন

  • আপডেট টাইম শুক্রবার, ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৮

নিউজ ডেস্কঃ-

সেন্টমার্টিনে যে কেউ যে কোনো ভাবে যেতে পারতেন। কিন্তু আগামী ১ মার্চ থেকে সেন্টমার্টিন যেতে অনলাইনে নিবন্ধন লাগবে। এমনকি শুধু দিনের বেলায় পর্যটকরা যেতে পারবেন। এছাড়া আরও কিছু নিষেধাজ্ঞা যুক্ত করা হয়েছে। গত ২৩ সেপ্টেম্বর সেন্টমার্টিন দ্বীপ রক্ষায় গঠিত আন্তঃমন্ত্রণালয় কমিটি এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

জানা যায়, পর্যটকদের কারণে বিপন্ন হতে চলা দ্বীপটিকে রক্ষা করতে সেখানে রাতযাপন নিষিদ্ধ করা হয়েছে। দ্বীপের গুরুত্বপূর্ণ এলাকা ছেঁড়া দ্বীপ ও গলাচিপা অংশে পর্যটকদের প্রবেশ সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ থাকবে। সেখানে মোটরসাইকেল, গাড়ি, স্পিডবোট চলাচল করতে পারবে না। কচ্ছপের প্রজনন ব্যাহত হওয়ায় রাতে দ্বীপে আলো জ্বালানো যাবে না।

সূত্র আরও জানায়, দ্বীপে চলাচলকারী জাহাজের সংখ্যা ২০ থেকে কমিয়ে দুটিতে আনা হবে। দিনে ৫শ’র বেশি পর্যটক সেখানে যেতে পারবেন না। দ্বীপে সব ধরনের নতুন স্থাপনা নির্মাণ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। সেখানে কোনো জেনারেটর ব্যবহার করা যাবে না, সৌরশক্তি ব্যবহার করতে হবে। দ্বীপে জমি বেচাকেনা করা যাবে না।

দ্বীপটির সব হোটেল-মোটেল ও স্থাপনা উচ্ছেদ করে জমি অধিগ্রহণ করা হবে। বসবাসকারীদের অন্যত্র সরিয়ে নেওয়া হবে। আগামী ৬ মাস থেকে ১ বছরের মধ্যে এসব সিদ্ধান্ত কার্যকর করা হবে। দীর্ঘ মেয়াদে দ্বীপটি শুধু জীববৈচিত্র্যের জন্য সংরক্ষণ করা হবে। সেন্টমার্টিন দ্বীপকে রক্ষা করতে এ ধরনের উদ্যোগ ছাড়া কোনো উপায় নেই।

উল্লেখ্য, এ দ্বীপে ৬৮ প্রজাতির প্রবাল আছে। ১৫১ প্রজাতির শৈবাল, ১৯১ প্রজাতির মোলাস্ক বা কড়ি-জাতীয় প্রাণী, ৪০ প্রজাতির কাঁকড়া, ২৩৪ প্রজাতির সামুদ্রিক মাছ, ৪ প্রজাতির উভচর, ২৮ প্রজাতির সরীসৃপ, ১২০ প্রজাতির পাখি, ২০ প্রজাতির স্তন্যপায়ী প্রাণী রয়েছে। এছাড়া ১৭৫ প্রজাতির উদ্ভিদ এবং ২ প্রজাতির বাদুড় ও ৫ প্রজাতির ডলফিন দেখা যায়।

আপনার মন্তব্য দিন

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..